বাংলা ভাষায় লেখালেখি করে আয়

বাংলা ভাষায় লেখালেখি করে অনলাইনে আয়

ঘরে বসে লেখালেখি করে অনলাইন এবং অফলাইনে ইনকাম করা যায়।অনলাইনে ও অফলাইনে লেখালেখি করে আয় করার অনেক উপায় রয়েছে! আপনি যদি ভালো লিখতে পারেন তবে আপনার জন্য কাজের অমিল হবে না। বেশিরভাগ সময় দেখা যায় ছাত্র-ছাত্রীরা আয় করতে চাই এটা বেশিরভাগ দেখা যায় একাদশ -দ্বাদশ এর ছাত্র-ছাত্রদের ইনকাম দিকে ঝুঁকতে চাই এবং ঝুঁকে।

আজকে কতগুলো টিকস বলবো যে গুলো অনুসরণ করলে আপনি ভালো একটা ইনকাম করতে পারেন। শুধু ছাত্র-ছাত্রীরা না এমনকি কর্মজীবী বা গৃহিণী রাও আয় করতে পারবেন। অনেকেই শখের বশে লেখালেখি করতে পছন্দ করেন এটা তাদের জন্য। শুধু লেখালেখি করলে তো হবে না লেখার গুনগত মান থাকতে হবে এক কথায় লেখাটার ভালো মানের হলে তাহলে লেখালেখি করে ইনকাম করা যায়।আপনি যে কন্টেন্ট টা লেখা শুরু করবেন সেটা যেন তথ্য বহুল থাকে যাতে যে পড়বে আপনার লেখা কন্টেন্ট তার যেন উপকার হয়।মার্কেটিং-এর কিছু বই যা পড়া উচিত নতুন উদ্যোক্তাদের?

আবার আপনার লেখা প্রিন্ট মাধ্যম বা অনলাইনে প্রকাশিত হলে তাহলে আপনাকে মানুষ চিনবে আপনার লেখার প্রতি মানুষের আগ্রহ হবে। আপনি অফলাইনে এবং অনলাইন উভয় ভাবে কন্টেন্ট রাইটিং এর মাধ্যমে উভয় ভাবে একটা মোটামুটি আয় করা সম্ভব।

অফলাইনে ক্ষেত্রেঃ

দেশের বিভিন্ন পত্রিকা ও ম্যাগাজিনের জন্য আর্টিকেল লিখে অফলাইনে আয় করা যায়। আপনি যদি ভালো লেখক হন তাহলে প্রিন্ট পত্রিকায় একজন লেখক হিসাবে বিভিন্ন বিষয় এর উপর লেখা লেখি করতে পারেন।

আপনার লেখা ভালো হলে বিভিন্ন পত্রিকায় ফিচার লিখে কিংবা ফুল টাইম সাংবাদিকতার মাধ্যমে আয় করতে পারেন অফলাইনে। যদি আপনি ইংরেজি টু বাংলায় অনুবাদ করতে পারেন তাহলে বিভিন্ন ইংরেজি বইকে বাংলায় লেখতে পারলে বই প্রকাশ করে আয় করতে পারেন। বিভিন্ন প্রকাশনীতে সম্পাদক একাডেমিক রাইটার হিসেবে কাজ করতে পারেন।

অনলাইনে ক্ষেত্রেঃ

বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোর্টাল সাইটে ও লেখালেখি করতে পারেন এই সব শুধুমাত্র বাংলা ক্ষেত্রে। আপনি চাইলে নিজেও একটা নিউজ পোর্টাল বা নিশ ব্লগ খুলে কাজ করতে পারেন। নিউজ পোর্টাল ডেইলি নিউজ নিয়ে কাজ করে ভালো একটা আয় করা যেতে পারে তার জন্য আপনাকে অনেক সময় দিতে হবে। নির্দিষ্ট টপিক নিয়ে নিউজ পোর্টাল নিয়ে কাজ করতে পারেন যেমনঃ খেলাধুলা,বিনোদন,শিক্ষা, টপ নিউজ ইত্যাদি। 

আপনি যদি ইংরেজি ভালো লেখতে পারলে আপওয়ার্ক, ফাইভার, ফ্রিল্যান্সারসহ অন্যান্য অনলাইন মার্কেটপ্লেসে একাউন্ট করে কাজ করতে পারেন। তবে এই দিকে আমি সাজেস্ট করবো আপনার নিজের পছন্দের লেখালেখির কাজটি করতে। যে বিষয়ে ওপর ভালো নলেজ আছে আপনি এই বিষয়ে লেখালেখি শুরু করুন, শুরু দিকে কনটেন্ট এর দিকে নজর দিন।

 নিজেকে পরিবর্তন করার উপায় 

 কিভাবে Passive Income শুরু করা যায়

 বিজ্ঞানের বই যা পড়া উচিত সবার

কন্টেন্ট কাকে বলে?

কন্টেন্ট আসলে কি আপনি এই লেখা টি পড়তেছেন এটা ও একটা কন্টেন্ট।সাধারণ কথায় কন্টেন্ট রাইটিং সাধারণত ডিজিটাল বিপণনের উদ্দেশ্যে ওয়ে সাইটে কন্টেন্টের পরিকল্পনা বা লেখার প্রক্রিয়াকে কন্টেন্ট বলা হয়। এটি একটি ব্লগ পোস্ট, ভিডিও এবং পডকাস্টের ও হতে পারে। ভিডিও কন্টেন্ট ইউটিউব যে সব ভিডিও দেখি এটা একটা ভিডিও কন্টেন্ট ইউটিউব বিভিন্ন বিষয় এর ওপর ভিডিও কন্টেন্ট পাবলিশ করে ইউটিউবরা।মোবাইল দিয়ে লেখালেখি করে অনলাইনে টাকা আয়?

লেখালেখি করো অনলাইনে আয়
লেখালেখি করে অনলাইনে আয়

বিভিন্ন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান তাদের প্রয়োজনে বিভিন্ন কনটেন্ট রাইটার নিয়োগ দিয়ে থাকেন। কনটেন্ট রাইটিংয়ের কাজ বিভিন্ন ধরনের হতে পারে তার মধ্যে উল্লেখ্য হলো ওয়েবসাইট কনটেন্ট রাইটিং, ব্লগ রাইটিং, ই-বুক রাইটিং, নিউজ কনটেন্ট রাইটিং, এসইও কনটেন্ট রাইটিং, অ্যাফিলিয়েট কনটেন্ট রাইটিং, পণ্যের রিভিউ লেখা, পণ্যের বর্ণনা লেখা, একাডেমিক কনটেন্ট রাইটিং, সিভি রাইটিং এই ধরনের হয়ে থাকে।

কনটেন্ট রাইটার হতে হলে কী করতে হবে?

কন্টেন্ট রাইটার যে কেউ হতে পারে কনটেন্ট রাইটার হওয়ার কোন শিক্ষাগত যোগ্যতা লাগে না তবে মনোবল লাগে। চাই লে যে কেউ কন্টেন্ট রাইটিং করতে পারে না ধৈর্য থাকে না। কন্টেন্ট রাইটিং প্রচুর ধৈর্য প্রয়োজন আপনার যদি ধৈর্য এবং লেখালেখির করতে ভালো লাগে তাহলে এই ফিল্ডে আপনাকে স্বাগতম। কোনো প্রতিষ্ঠানে জন পূর্ণকালীন চাকরি করতে পারেন তার জন্য আপনার প্রয়োজন ভালো অনলাইন কাজের নমুনা যেটাকে বলা হয় Portfolio আপনি লেখালেখি শুরু করে দিতে পারেন। 

লেখালেখি করার কোন মাধ্যমে না থাকলে চাইলে আপনি আমাদের ওয়েবসাইট ও লেখালেখি শুরু করতে পারবেন আমরা কিছু ক্যাটাগরির ওপর লেখার সুযোগ দিচ্ছি বলতে পারেন অনলাইন Portfolio এর জন্য। আপনি যদি এই ক্যাটাগরি ওপর লেখতে পারেন তাহলে আপনার কন্টেন্ট পাবলিশ করবো আমরা। ৫টি

১। অনলাইন আয় ( যে কোন বিষয় এর ওপর হতে পারে মিনিমাম ৯০০ শব্দ হতে হবে।
২। অনুপ্রেরণা। ( মিনিমাম ৭০০ শব্দের হতে হবে।
৩। ‍সোশ্যাল মিডিয়া । ( যে কোন সোশ্যাল মিডিয়া হতে পারে মিনিমাম৬০০ শব্দের)
৪।মার্কেটিং (মিনিমাম ১০০০ শব্দের হতে হবে)
৫। মোটিভেশানল ( মিনিমাম ৬০০ শব্দের হতে হবে )
৬। শিক্ষা বা বুক রিভিউ (যে কোন বিষয় এর হতে পারে মিনিমাম ৭০০ শব্দের হতে হবে।

৭। আপনি কি বিষয় ইন্টারেস্ট লেখতে চান তাহলে আমাদের কে জানান আপনার বিষয় টি যদি আমাদের ভালো লাগে তাহলে প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইট। এই মেইলে যোগাযোগ করুন info@nicvel.com ইমেইল করুন। 

অনলাইনে আয়

আপনি ভালো দক্ষ হন তাহলে যেকোনো ব্যাকগ্রাউন্ড থেকেই ভালো কনটেন্ট রাইটার হওয়া সম্ভব। ভাষাগত দক্ষতা ও বিষয়বস্তু সম্পর্কে জ্ঞান থাকলে যে কেউই স্বাধীন আয়ের উৎস হিসেবে বিভিন্ন কনটেন্ট লিখতে পারেন। কন্টেন্ট রাইটিং হলো কোন কিছুর বিস্তারিত বর্ণনা করাকে বুঝায়।

ধরুন আপনি ভ্রনন নিয়ে লেখালেখি করবেন তাহলে এটা বিস্তারিত ভাবে বলুন যাতে যাতে যে আপনার কন্টেন্ট টা পড়বে সে সঠিক টা পাই অন্তত সেই এটা পাই আপনার ব্লগে আপনি ঢাকা টু কক্সবাজার ভ্রমন এর জন্য কি রকম সময় যাবে আসা যাওয়ার জন্য থাকার ব্যবস্থা কেমন পর্যটন স্থান গুলো কেমন, যাতায়াত ব্যবস্থা কেমন কত টাকা খরচ হতে পারে এই সব যদি আপনি ডিটেইলস ভাবে উল্লেখ করতে পারেন তাহলে আপনার লেখা টা যে পড়বে তার জন্য খুব সহজে গ্রহন হবে। নিজেকে পরিবর্তন করার ২৬ টি সঠিক উপায়?

কন্টেন্ট রাইটিং থেকে প্রতি মাসে কত আয় করা যেতে পারে?

কনটেন্ট রাইটিং থেকে প্রতি মাসে কত টাকা আয় হবে এটা নির্দিষ্ট করে বলা যায় না। তবে আপনি যদি কষ্ট করতে পারেন তাহলে ভালো আয় করা সম্ভব। আপনি চাইলে নিজের জন্য একটা ব্লগ ওয়েবসাইট তৈরি করে এই খানে লেখালেখি শুরু করতে পারেন। নতুন অবস্থায় টাকা নিয়ে না ভাবে আপনি কন্টেন্ট নিয়ে ভাবা উচিত তাহলে আপনার ব্লগ সাইটে মানুষ আসা শুরু করবে গুগল এডসেন্স দ্বারা আপনি ভালো একটা ইনকাম করা সম্ভব তার জন্য প্রয়োজন আপনার ব্লগ সাইটে ট্রাফিক।

আপনি যদি কোন ম্যাগাজিনের জন্য আর্টিকেল লিখলে এই লেখাটি ছাপা হলে নির্দিষ্ট পরিমাণ একটা সম্মানী দিবে ওই ম্যাগাজিন থেকে। বর্তমান সময়ে মানুষ অনলাইন দিকে ছুটতেছে তার জন্য নতুন করে সুযোগ হচ্ছে কন্টেন্ট রাইটার এর কাজ। কোন ফ্রীলান্সার প্ল্যাটফর্মে কাজ করলে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে একেকটি কাজ জমা দিয়ে নির্দিষ্ট পরিমাণ ডলার আয় করা যায় । নতুন অবস্থায় টাকা কিংবা ডলার দিকে নজর না দিয়ে কন্টেন্ট রাইটিং দিকে নজর দিন তাহলে একটা সময়ে যাওয়ার পর একটা ভালো ইনকাম তৈরি হবে হতাশ আর ধৈর্য ছাড়া যাবে না।

মানুষের দৃষ্টিভঙ্গির ভিতরে লুকিয়ে থাকে সফলতা

৭টি বিষয়ের উপর সফল ব্যাক্তিরা সময় নষ্ট করে না

পৃথিবীর ৫ টি অজানা তথ্যঃ যা আপনাকে ভাবতে বাধ্য করবে

 

৫টি ফ্রিল্যান্সিং স্কিল যার চাহিদা থাকবে সবসময় 

 

আপনি যদি ছাত্র হয়ে থাকেন তাহলে দৈনিক ৩-৪ ঘন্টা সময় দিন প্রতি সপ্তাহে ২৩-২৬ ঘন্টা করে সময় দিন ইন-শা-আল্লাহ একটা সময় যাওয়া পর দেখবেন একটা ভালো আয় সৃষ্টি হয়েছে সফলতা তাড়াতাড়ি আসে না প্রচুর পরিশ্রম এর পর সফলতা আসে।

আপনার কাছে থাকা প্রশ্ন ?

 

কন্টেন্ট লিখে আয়?


কন্টেন্ট লিখে আয় যায় এটা যেমন ঠিক । কন্টেন্ট লিখে আয় করা যায় না সেটা ও তেমন ঠিক, কন্টেন্ট লিখলে কন্টেন্ট এর মতো হতে হবে মন চাইলো লেখলেন এমন কন্টেন্ট এর কোন দাম নেয়। কন্টেন্ট লিখে অনেক ভাবে আয় করা যায় : ফ্রিল্যান্স রাইটার, ব্লগিং করে, নিজের লেখা বিক্রি করে।

বাংলা গল্প লিখে টাকা আয়?


হা বাংলা গল্প লিখে আয় করা যায়। এমন গল্প লেখতে পারেন যা মানুষ পড়ে মজা পাবে তাহলে আপনার বাংলা গল্প লিখা থেকে আয় করা সম্ভব হবে । মনে করুন আপনি একটা গল্প লেখতেছেন সেটা কোন বইয়ে আগে থেকে লেখা আছে সেটা মানুষ অলরেডি পড়ে নিয়েছে তাহলে আপনার গল্প কেউ পড়বে না।

রিভিউ লিখে আয়?


আপনার যদি ভালো আইডিয়া থাকে কোন পণ্য রিভিউ লেখার মতো তাহলে আপনি খুব সহজে আয় করতে পারবেন। রিভিউ লেখলে সঠিক এবং ঠিক রিভিউ দিতে হবে খারাপ পণ্য ভালো রিভিউ দিলে ভিজিটর আপনার রিভিউ পড়তে আসবেনা । আপনার রিভিউ উপর নির্ভর করে অনেক মানুষ পণ্য ক্রয় করবে।

1 thought on “বাংলা ভাষায় লেখালেখি করে অনলাইনে আয়”

  1. Pingback: মোবাইল দিয়ে লেখালেখি করে টাকা আয়? -

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top